রবিবার, 21 এপ্রিল 2019

মনিরামপুর পৌরসভাকে খ থেকে ক শ্রেণীতে উন্নিত করার ঘোষনা মনিরামপুর ও লাকসামকে একই ভাবে উন্নয়নের মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে হবে-এলজিআরডি মন্ত্রী

Written by  শনিবার, 13 এপ্রিল 2019 00:59
ফিডব্যাক দিন
(0 votes)

মনিরামপুর প্রতিনিধি ঃ স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেছেন, মনিরামপুরের জনগন আমাকে যে সম্মান দিয়েছে তাতে আমি অভিভূত।মনিরামপুরের উন্নয়নের জন্য আমার কাছে দাবি করার প্রয়োজন নেই। আমার সংসদীয় এলাকা লাকসামের মতই এলজিআরডি প্রতমন্ত্রী স্বপন ভট্টচার্য্যরে সংসদীয় আসন মনিরামপুরকে আমি ভালবাসি। তাই লাকসাম এবং মনিরামপুরকে আমি অভিন্নভাবে দেখিনা। সে কারনে লাকসাম এবং মনিরামপুরকে একই ভাবে উন্নয়নের মডেল হিসেবে গড়ে তোলা হবে। তিনি বলেন বর্তমান দেশের নতুন করে ২৬ হাজার প্রাথমিক শিক্ষক নূন্যতম ২৫ হাজার টাকা বেতন গ্রহণ করছেন। যারা এক সময় মাত্র ৫’শ টাকার ভাতা পেতেন।  যা বর্তমান সরকার তাদেরকে(বেসরকারি রেজিষ্ট্রার্ড) জাতীয়করণের মাধ্যমে প্রকৃত শিক্ষকের মর্যাদা দিয়েছেন। পুলিশ সদস্যরা এক সময় ১৫’শ টাকার বেতনে চাকুরী করতেন। তারা এখন নূন্যতম ২০ হাজার টাকা বেতন গ্রহণ করে থাকেন। বর্তমান সরকারের লক্ষ্য এ দেশের কোন নাগরিকও অভাব অনুভব করবে না। মনিরামপুর পৌরসভাকে ‘খ’ শ্রেণী থেকে ‘ক’ শ্রেণীতে উন্নতি করার ঘোষনা দিয়ে প্রধান অতিথি আরো বলেন, ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর ক্ষুধা ও দারিদ্র বিমোচনের জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছেন। অচিরেই এদেশকে হংকং এবং সিঙ্গাপুরের আদলে সাজানো হবে। শুক্রবার দুপুরে মনিরামপুর উপজেলা পরিষদের সম্প্রসারিত প্রশাসনিক ভবন উদ্বোধনী ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান উল্লাহ শরীফির সভাপতিত্বে ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) সাইয়েমা হাসানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সংসদ সদস্য এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য। স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র অধ্যক্ষ কাজী মাহমুদুল হাসান। এ সময় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান নাজমা খানম, প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাউদ্দীন শিকদার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক ফারুক হোসেন প্রমুখ। এর আগে এলজিআরডি মন্ত্রীকে যশোর বিমান বন্দর থেকে শতাধিক মোটরশোভার মাধ্যমে অভ্যর্থনা জানিয়ে মনিরামপুরে আনা হয়। মন্ত্রীর সম্মানে মোড়ে মোড়ে নির্মান করা হয় সুসজ্জিত তোরন। মনিরামপুরের ব্যবসায়ীরা দোকান বন্ধ করে সড়কের দুপাশে দাড়িয়ে ফুল ছিটিয়ে মন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানান। অবশ্য এ সময় এলজিআরডি মন্ত্রী হাত উচু করে তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

??-??-????

13-04-2019

 

পড়া হয়েছে 2 বার

আপনার মতামত জানান...

আপনার মতামত জানানোর জন্য ধন্যবাদ

প্রধান সম্পাদক : আতিয়ার পারভেজ || সম্পাদক ও প্রকাশক : মনোয়ারা জাহান || ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: শাহীন ইসলাম সাঈদ।
বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ২৫, স্যার ইকবাল রোড, পিকচার প্যালেস মোড়, গোল্ডেন কিং ভবন, খুলনা।
সম্পাদক কর্তৃক দেশ বাংলা প্রিন্টার্স, ৫৮, সিমেট্রি রোড, খুলনা হতে মুদ্রিত ও ১০০, খানজাহান আলী রোড থেকে প্রকাশিত।
যোগাযোগঃ সম্পাদক : ০১৭৫৫-২২৪৪০০, বার্তা কক্ষ : ০১৭৮৭-০৫৫৫৫৫, বিজ্ঞাপন : ০১৭৫৫-১১১৮৮৮
ইমেইল : newsamarekush@gmail.com || ওয়েব: amarekush.com