রবিবার, 21 এপ্রিল 2019

খুলনায় বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস পালিত

Written by  সোমবার, 08 এপ্রিল 2019 00:53
ফিডব্যাক দিন
(0 votes)

তথ্যবিবরণী ঃ ‘সমতা ও সংহতি নির্ভর সর্বজনীন প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে দেশের অন্যান্য স্থানের মতো খুলনায় বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস পালিত হয়। দিবসটি পালন উপলক্ষে খুলনা সিভিল সার্জন অফিসের উদ্যোগে সকালে স্কুল হেলথ ক্লিনিক সম্মেলনকক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জিয়াউর রহমান। খুলনার সিভিল সার্জন ডাঃ এএসএম আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন স্বাস্থ্য বিভাগের উপপরিচালক ডাঃ সৈয়দ মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আতিয়ার রহমান শেখ, ইউনিসেফ এর প্রতিনিধি ডাঃ মোঃ নাজমুল আহসান, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি ডাঃ মোঃ সৈয়দ আহসান রেজভি, এনজিওর প্রতিনিধি ডাঃ মোঃ মোস্তাক আহমেদ ও এসএম মাহফুজুর রহমান প্রমুখ। সভা পরিচালনা করেন সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আবুল কালাম আজাদ। অতিথিরা বলেন, মানুষের দোরগোড়ায় অত্যাবশ্যকীয় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে সরকার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে । বাংলাদেশে স্বল্প খরচে মানুষের স্বাস্থ্যসেবা দেওয়া হচ্ছে।  গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে প্রায় সাড়ে ১৩ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক ও ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্র গড়ে তোলা হয়েছে এবং বিনামূল্যে ৩৬ প্রকার ঔষধ প্রদানসহ চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এ সকল পদক্ষেপের ফলে বর্তমানে স্বাস্থ্যখাতে যথেষ্ট উন্নতি সাধিত হয়েছে। ইতোমধ্যেই শিশুমৃত্যু ও মাতৃমৃত্যুর হার অনেক কমে গেছে। সার্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা অর্জনের জন্য সকলকে কাজ করে যেতে হবে। বক্তারা সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করে অর্জিত সাফল্যের ধারা অব্যাহত রেখে কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য সরকারের উদ্যোগের পাশাপাশি বেসরকারি সংস্থাকে এগিয়ে আসার আহবান জানান। সভায় জানানো হয়, সরকার বর্তমানে জিডিপির ০ দশমিক ৯২ শতাংশ স্বাস্থ্যখাতে ব্যয় করছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসেবে বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ু ২০০০ সালে ছিলো ৬৫.৩ বছর যা ২০১৭ সালে ৭২ বছরে উন্নীত হয়েছে। এছাড়া পরিবার পরিকল্পনা সুবিধা পেয়ে থাকে ৬২.৫ শতাংশ, শিশুর টিকাদানের অর্জন ৯৭ শতাংশ, অত্যাবশ্যর্কীয় ঔষধ সুবিধার আওতায় আনা হয়েছে ৬৫ শতাংশ মানুষকে। মাতৃমৃত্যুর হার ২০১৭ সালে প্রতি একলাখে ১৭২ জন যা ২০১৫ ছিলো ১৭৬ জন, প্রতি হাজার জনে নবজাতকের মৃত্যু ২০১৫ সালে ছিলো ২০ যা ২০১৭ সালে কমে ১৮.৪ জন। পাঁচ বছরের নিচে শিশুমৃত্যুর হার প্রতি এক হাজার জনে ২০০০ সালে ছিলো ৮৮ জন যা ২০১৭ সালে ৩১ জনে নেমে এসেছে। জাতিংঘ ঘোষিত ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনের জন্য সর্বজনীন স্বাস্থ্যসেব নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সরকার বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এর আগে সকালে খুলনা জেনারেল হাসপাতাল চত্ত্বর থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে স্কুল হেলথ ক্লিনিকে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে সরকার-বেসরকারি কর্মকর্তা, চিকিৎসক, নার্স ও বিভিন্ন এনজিও প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন।

পড়া হয়েছে 1 বার

আপনার মতামত জানান...

আপনার মতামত জানানোর জন্য ধন্যবাদ

সোস্যাল নেটওয়ার্ক

খবরের ভিডিও

আজকের রাশিফল

ভাগ্যলক্ষ্মী আজ আপনার সহায় হবে। কাজকর্মে সুফল পাবেন। পরিবারের লোকদের সাথে কোথাও বেড়াতে যেতে পারেন। সময় ভালো যাবে।

আপনার গ্রহ পরিস্থিতি আজ অনুকূল হয়ে পড়বে। দুর্যোগের মেঘ সরে গিয়ে নতুন সূর্য উদয় হবে। সার্বিক সময় ভালোভাবে যাবে।।

প্রেমিক-প্রেমিকাদের জন্য দিনটি বিশেষ শুভ। প্রেমিক-প্রেমিকদের মধুর মিলন হবে। আপনার দাম্পত্য দিকও ভালো যাবে। সময় ভালো যাবে।

এমন কোনো ঘটনা ঘটতে পারে যার ফলে বসের বকুনি খেতে হচ্ছে। ব্যবসা-বাণিজ্যে লোকসান হতে পারে। সময় আপনার অনুকূলে নেই।

পথ চলতে বা দূরের যাত্রায় সতর্ক থাকুন। কোনো ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। আপনার সব দু’নম্বরী কাজ আপাতত বন্ধ রাখুন। সময় শুভ নয়।

আপনার সামনে সমস্যা আসবে ঠিকই। তবে আপনি বুদ্ধিমত্তার সাথে সব প্রতিকূল পরিস্থিতি মোকাবেলা করে নেবেন। সময় ভালো যাবে।

ব্যবসায়ীদের জন্য আজকের দিনটি বিশেষভাবে শুভ। আপনার ব্যবসা-বাণিজ্য ফুলে-ফেঁপে উঠবে। আপনি নানা সূত্র থেকে টাকা পয়সা পাবেন।

কোনো টাকা আটকে গিয়েছিল বা কোনো আটকে থাকা বিল আজ পেতে পারেন। কাজকর্মে সর্বাত্মক সুফল আশা করতে পারেন।

আজ আপনার গ্রহ পরিস্থিতি প্রতিকূল হয়ে পড়বে। শোকগ্রস্ত হওয়ার মতো কোনো ঘটনা ঘটতে পারে। টাকা-পয়সার টানাটানি চলতে থাকবে।

কর্ম ক্ষেত্রে আপনার কারণে বড় কোনো অর্ডার আসতে পারে। ফলে বস আপনার প্রতি সদয় হবে। ভালো কোনো বদলি বা পুরস্কার পেতে পারেন।

শত্রু এবং বিরোধীদের তৎপরতা বেড়ে যেতে পারে। কিন্তু ভয়ের কিছু নেই। তারা আপনার কোনো ক্ষতি করতে পারবে না। সময় মিশ্র সম্ভাবনাময়।

দাম্পত্য সুখ শান্তি প্রতিষ্ঠায় জীবন সাথীর মতামতকে গুরুত্ব দিন। নইলে অশান্তি দেখা দেবে। রাগ ক্ষোভ জেদ পরিহার করার চেষ্টা করুন।

অনলাইন জরিপ

দুদক চেয়ারম্যান বলেছেন, দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত অর্থ জঙ্গিবাদের পেছনে ব্যয় হচ্ছে। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?
  • Votes: (0%)
  • Votes: (0%)
  • Votes: (0%)
Total Votes:
First Vote:
Last Vote:

হাট-বাজার

আঠারো মাইল পশুর হাট - ডুমুরিয়া, খুলনা, বাংলাদেশ

বিস্তারিত দেখুন

পুরনো খবর

প্রধান সম্পাদক : আতিয়ার পারভেজ || সম্পাদক ও প্রকাশক : মনোয়ারা জাহান || ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: শাহীন ইসলাম সাঈদ।
বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ২৫, স্যার ইকবাল রোড, পিকচার প্যালেস মোড়, গোল্ডেন কিং ভবন, খুলনা।
সম্পাদক কর্তৃক দেশ বাংলা প্রিন্টার্স, ৫৮, সিমেট্রি রোড, খুলনা হতে মুদ্রিত ও ১০০, খানজাহান আলী রোড থেকে প্রকাশিত।
যোগাযোগঃ সম্পাদক : ০১৭৫৫-২২৪৪০০, বার্তা কক্ষ : ০১৭৮৭-০৫৫৫৫৫, বিজ্ঞাপন : ০১৭৫৫-১১১৮৮৮
ইমেইল : newsamarekush@gmail.com || ওয়েব: amarekush.com