বুধবার, 16 জানুয়ারী 2019

গর্বিত অধিনায়ক, আছে শেখার তাগিদও

Written by  রবিবার, 30 সেপ্টেম্বর 2018 01:46
ফিডব্যাক দিন
(0 votes)

এফএনএস স্পোর্টস: অনেক প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে যেভাবে এশিয়া কাপের ফাইনালে এসেছে দল, ফাইনালে লড়েছে শেষ বল পর্যন্ত, তাতে দারুণ গর্বিত মাশরাফি বিন মুর্তজা। তবে তৃপ্তির ঢেকুর তুলছেন না এতেই। টুর্নামেন্ট জুড়ে যেসব ভুল করেছে দল, তা থেকে শেখার তাগিদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।
টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচেই বাংলাদেশ হারায় দলের সেরা ব্যাটসম্যান তামিম ইকবালকে। পরে পাকিস্তানের বিপক্ষে সুপার ফোরের শেষ ম্যাচের আগে চোটের কারণে ছিটকে যান দলের সেরা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। চোট নিয়েই গোটা টুর্নামেন্ট খেলতে হয়েছে দলের কয়েকজনকে।
দুবাই ও আবু ধাবির প্রচ- গরমে দল ছিল ওষ্ঠাগত। ম্যাচগুলোর মাঝখানে বিরতি কম ছিল বলে শরীর পায়নি তাজা হওয়ার পর্যাপ্ত সময়। সব মিলিয়ে এবারের এশিয়া কাপ বাংলাদেশের জন্য ছিল অনেক বড় চ্যালেঞ্জ। এতসব সামলে ফাইনালে ওঠা ও শেষ বল পর্যন্ত শিরোপার আশা টিকিয়ে রাখা কৃতিত্বের দাবি রাখে অবশ্যই।
তবে বাংলাদেশের ব্যাটিং ধুঁকেছে সব ম্যাচেই। শুধরে নেওয়া যায়নি বেশ কিছু ভুল। ফাইনালে বিনা উইকেটে ১২০ থেকে ২২২ রানে গুটিয়ে গেছে দল। বাস্তবতাগুলো কাঁটা হয়ে বিধছে মাশরাফির মনে। ম্যাচ শেষে মাশরাফির কণ্ঠে যেমন তাই গর্বের ছোঁয়া, তেমনি আছে ভুল থেকে শেখার তাড়নাও।
“হ্যাঁ, ছেলেরা যেভাবে খেলেছে গর্ব করাই যাই। তবে আমাদের আরও অনেক কিছু শিখতে হবে। এই ধরনের টুর্নামেন্টে আমাদের এখনও লড়াই করতে হচ্ছে। টুর্নামেন্ট জুড়ে ব্যাটিং ততটা ভালো হয়নি। আজ এত ভালো শুরুর পর আরও বড় স্কোর গড়া উচিত ছিল। বোলাররা প্রায় সব ম্যাচেই ভালো করেছে। আজও চেষ্টা করেছে। অবশ্যই গর্ব আছে। তবে এখান থেকে সামনে এগিয়ে যেতে হবে আমাদের।”
“সাকিব ও তামিমকে না পাওয়া ছিল অবশ্যই বড় ধাক্কা। ওদেরকে ছাড়াও দল যেভাবে খেলেছে, তাতে ছেলেদের কৃতিত্ব দিতেই হবে। তবে যেটা বললাম, আরেকটু ভালো খেললে আরও ভালো হতে পারত।”
আরেকটু ভালোর আক্ষেপ নিয়ে শেষ হলো ছয়টি টুর্নামেন্ট। এ নিয়ে ছয়টি টুর্নামেন্টের ফাইনালে হারল বাংলাদেশ। অধরাই রইল একটি আন্তর্জাতিক ট্রফি। গর্ব আর আক্ষেপ নিয়ে অপেক্ষা এখন পরের সুযোগের।

পড়া হয়েছে 11 বার

আপনার মতামত জানান...

আপনার মতামত জানানোর জন্য ধন্যবাদ

সোস্যাল নেটওয়ার্ক

খবরের ভিডিও

অনলাইন জরিপ

দুদক চেয়ারম্যান বলেছেন, দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত অর্থ জঙ্গিবাদের পেছনে ব্যয় হচ্ছে। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?
  • Votes: (0%)
  • Votes: (0%)
  • Votes: (0%)
Total Votes:
First Vote:
Last Vote:

হাট-বাজার

আঠারো মাইল পশুর হাট - ডুমুরিয়া, খুলনা, বাংলাদেশ

বিস্তারিত দেখুন

পুরনো খবর

প্রধান সম্পাদক : আতিয়ার পারভেজ || সম্পাদক ও প্রকাশক : মনোয়ারা জাহান || ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: শাহীন ইসলাম সাঈদ।
বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ২৫, স্যার ইকবাল রোড, পিকচার প্যালেস মোড়, গোল্ডেন কিং ভবন, খুলনা।
সম্পাদক কর্তৃক দেশ বাংলা প্রিন্টার্স, ৫৮, সিমেট্রি রোড, খুলনা হতে মুদ্রিত ও ১০০, খানজাহান আলী রোড থেকে প্রকাশিত।
যোগাযোগঃ সম্পাদক : ০১৭৫৫-২২৪৪০০, বার্তা কক্ষ : ০১৭৮৭-০৫৫৫৫৫, বিজ্ঞাপন : ০১৭৫৫-১১১৮৮৮
ইমেইল : newsamarekush@gmail.com || ওয়েব: amarekush.com